way of living

মুখ আর সমস্যা

কথায় আছে মুখ দিয়ে যায় চেনা , তবে এই চেনা যে কি সেটা নিয়ে তোমাদের বলছি না , বলতে চলেছি বেশ কিছু রোগের চেনা নিয়ে | কঠিন রোগ হলে ডাক্তাররা স্ক্যান আর অন্য সব জটিল পরীক্ষার মধ্য দিয়ে সঠিক রোগের নির্ণয় করে থাকেন | কিন্তু প্রাচীনকালে এতসব ডাক্তারি পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছিল না সেক্ষেত্রে শুধুমাত্র তোমার মুখ দেখেই অনেক রোগের আঁচ করে দিতো | আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে এই পদ্ধতির নাম আছে , ” মুখ মাপা ” কারণ মুখের প্রায় সব অংশই শরীরের কোনো না কোনো অঙ্গের সাথে যুক্ত | সেই ধরণেরই বেশ কিছু খবর রইলো এখানে |

১) বিবর্ণ ত্বক

মুখের চামড়া দেখতে যদি প্রাণহীন লাগে তবে খুব বেশি ভয় পাওয়ার কিছু নেই কারণ এটি খুবই সাধারণ ঘটনা | সচারচর এটি হয়ে থাকে এনিমিয়া বা রক্তাল্পতার জন্য | মুখের এই অংশে তখন অক্সিজেনের সাপ্লাই কম হয় , লাল রক্তকণিকা কমে যায় তাই এই রকম দেখতে লাগে | তবে অনেকসময় খুব ঠান্ডায় ও ওরকম হতে পারে | খাবার সম্পর্কে একটু সচেতন হলেই এটি ঠিক হয়ে যায় | বিশেষ করে আয়রন সমৃদ্ধ খাবার যোগ করো নিজের ডায়েটে |

১২) অসাড় মুখ

মুখের যে কোনো অংশে অনেকসময় আমরা অসাড়তা অনুভব করি , এতে ভয় পেয়ে যাই | জিনিসটির নাম ” বেল’স পালসি ” | এইসময় মুখের সেই অসাড় দিকটি নড়ানো যায়না , এমনকি একটু যন্ত্রনা ও হয় চোয়াল আর কানের পিছনে | এই সমস্যার কারণ হলো একটি ভাইরাস যা মুখের নার্ভগুলোকে আক্রমণ করে | মুখ কখনো এর জন্য ফুলেও যায় | এটি সারতে কখনো ১-২ ঘন্টা সময় লাগে আবার কয়েক মাস ও লাগতে পারে | ডাক্তার দেখিয়ে এবিষয়ে ভালো করে জেনে নেয়াই ভালো |

২) বেশি রোম

মুখে হালকা রোম মেয়েদের অনেকেরই থাকে কিন্তু সেই রোম যদি বেশি পরিমানে দেখা যায় এবং অবাঞ্ছিত জায়গায় দেখা যায় তবে তা চিন্তার কারণ | এর পিছনে থাকে হরমোনের গন্ডগোল বিশেষ করে যাকে বলে মেল হরমোন | সেক্ষত্রে খাবারে মিষ্টি জাতীয় জিনিস না খাওয়া উচিত আর বেশি পরিমানে প্রোটিন খাওয়া উচিত |

৩) ফাটা ঠোঁট

অনেকেই এই সমস্যায় ভুগি বিশেষ করে শীতকালের সময় | এর প্রধান কারণ শুষ্কতা আর শরীরে জলের পরিমাণ কম হওয়া | তবে এর থেকেও বেশি সমস্যা শরীরে লুকিয়ে থাকতে পারে যদি বেশি দিন আমরা এই সমস্যায় ভুগি | খুব রোদে অনেকদিন থাকলে ঠোঁট ফাটতে থাকে আর এথেকে স্কিন ক্যান্সার ও হতে পারে | তাই একটু সচেতন হতে হবে |

৪) আঁচিল

এমনিতে মুখের মধ্যে আঁচিল খুব ক্ষতিকারক নয় তবে যখন প্রথম হয় তখন একটু খেয়াল রাখতে হবে আঁচিলটিকে | দেখতে হবে এর রং কেমন , আকারে ৬ মিলিমিটারের বেশি বাড়ছে কি না , আঁচিলটির আশেপাশে লোম দেখা যাচ্ছে কিনা ইত্যাদি | এইগুলি যদি হয় তবে অবশ্যই ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে হবে | আর মুখে যদি বেশ কয়েকটি আঁচিল থাকে তাদের ক্ষেত্রে সুখবর হলো তাদের বয়সের তুলনার কম বয়সী দেখতে লাগে |

৫) ঠোঁটে ঘা

নাকের মধ্যে ঘা আর ঠোঁটে ঘা যা ঠান্ডা লেগে হতে পারে আর হতে পারে হার্পস ভাইরাসের জন্য | যদিও এর সহজ চিকিৎসা আছে কিন্তু যদি বারে বারে হয় তবে অন্য কারণ ও দেখতে হবে | এই ধরণের ভাইরাস তখনি আক্রমণ করে যখন আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম হয় , উদ্বেগ নিয়ে ভুগি আর অতিরিক্ত ক্লান্তি থাকে শরীরে | এইসব ব্যাপারগুলোর খেয়াল রাখলেই ঘা সেরে যেতে পারে | | তবে হের্পস ভাইরাস থেকে ঠোঁট শুস্ক হয়ে চামড়া উঠতে থাকে যা খুব ছোঁয়াচে ও |

৬) শুকনো ত্বক

মুখের ত্বক খুব বেশি শুস্ক হয়ে গেলো একটু ভালো করে মোয়েসচরাইজার লাগালে ভালো ফল দিতে পারে | কিন্তু অনেক সময় এতে কাজ না হলে বুঝতে হবে সমস্যার পিছনে অন্য কোনো কারণ আছে | সেক্ষেত্রে দেখতে হবে সুষম খাবার খাওয়া হচ্ছে কি না , দেখতে হবে থাইরয়েডের সমস্যা আছে কি না বা সুগার লেভেল দেখতে হবে | এর সাথে প্রচুর পরিমানে জল ও খেতে হবে | এর পরেও যদি না ঠিক হয় তবে ডাক্তার দেখাতে হবে |

৭) চোখ ফোলা

চোখ ফোলা আর চোখের নিচের অংশ উঁচু হয়ে থাকা বিশেষ করে ঘুমিয়ে ওঠার পর খুব বড় সমস্যা | সাধারণত খুব দেরি করে ঘুমানো , কম ঘুমানো আর ঠিক করে না ঘুম হওয়া এইসবের জন্যই এটা হয়ে থাকে | তাই এই অভ্যাসগুলো ঠিক করে নিলেই সমস্যা চলে যাবে | তবে চোখের নিচের অংশের ফুলে থাকার কারণ এই অংশে জল জমা | আর এলার্জির কারণে , কান্নাকাটির কারণে আর অনেক পরিমানে নুন খেলে এই জল জমা বেশি হয়ে যেতে পারে | তাই এইগুলি থেকে সাবধানে থাকা ভালো |

৮) মুখে গন্ধ

মুখের মধ্যে দুর্গন্ধ হওয়া বেশ ঝামেলার | এটি খাবারের কণা আটকে যেমন হয় তেমনি অন্য কারণে হতে পারে যা বেশ গুরুতর | রিসার্চারদের দাবি এই গন্ধ বোঝাতে পারে আমাদের হার্টের আর হাড়ের সমস্যা নিয়ে | তাই দিনে দুবার ব্রাশ করা লোকজনদের হার্টের সমস্যা কম হয়,এমনটাই তাদের দাবী |

৯) ব্রণ সমস্যা

মুখের ব্রণ বিশেষত যখন চোয়াল আর তার আশেপাশে ব্রণ হয় তখন হরমোনের সমস্যা থেকেই বেশি হয় | এক্ষেত্রে নিজের খাবারে তেলমসলা আর মিষ্টি জাতীয় জিনিস কম খেতে হবে | আর হরমোন লেভেল চেক করে নিতে হবে | সাথে ভিটামিন বি সমৃদ্ধ খাবার অবশ্যই খেতে হবে |

১০) কপালের রেখা

বয়স বাড়ার সাথে সাথে মুখে অনেক রকমের ভাঁজ আর লাইন দেখা যায় | আমরা সবাই অপছন্দ করি , চেষ্টা করি দূর করতে কিন্তু এই লাইনগুলো আমাদের শরীরের সমস্যার খোঁজ দেয় | মন যদি খুব বেশি স্ট্রেস যুক্ত থাকে তবে এই লাইনগুলি মুখের মধ্যে বেশি দেখা যায় | এছাড়া পুষ্টিকর খাবার না খেলেও এটি হয় | আর পাকস্থলীর সমস্যা থেকেও মুখের রেখা স্পষ্ট হয় তাই চর্বি জাতীয় খাবার কম খাও |

১১ ) শুস্ক চুল

আমাদের চুল যদি খুব শুকনো লাগে তবে তা দেখতে প্রাণহীন লাগে | আবার উল্টে যদি খুব উজ্জ্বল হয় তবে তা দেখতে খুব ভালো লাগে | ভঙ্গুর আর শুকনো চুল হলে শরীরে জলের সমস্যা একটা কারণ | থাইরয়েডের সমস্যা ও হতে পারে | আবার চুলে খুব বেশি পরিমানে নানা রকমের কেমিক্যাল ব্যবহার করার ফলেও চুল শুষ্ক হয়ে যায় |

১২) অসাড় মুখ

মুখের যে কোনো অংশে অনেকসময় আমরা অসাড়তা অনুভব করি , এতে ভয় পেয়ে যাই | জিনিসটির নাম ” বেল’স পালসি ” | এইসময় মুখের সেই অসাড় দিকটি নড়ানো যায়না , এমনকি একটু যন্ত্রনা ও হয় চোয়াল আর কানের পিছনে | এই সমস্যার কারণ হলো একটি ভাইরাস যা মুখের নার্ভগুলোকে আক্রমণ করে | মুখ কখনো এর জন্য ফুলেও যায় | এটি সারতে কখনো ১-২ ঘন্টা সময় লাগে আবার কয়েক মাস ও লাগতে পারে | ডাক্তার দেখিয়ে এবিষয়ে ভালো করে জেনে নেয়াই ভালো |

About Antara Samanta

Myself is Antara Samanta, a wanna be writer in homemaking style with an idea to embrace the indifference in a classy dynamic way. Antara is passionate about reading,singing and writing-in that way.
View all posts by Antara Samanta →