cooking

পিৎজা পিৎজা

কি গো আজকে কি টপিং নেবে ?

প্রশ্নটি শুনে , ভাবতে বসলাম , নতুন কিছু নেবো নাকি যা খেয়ে এসেছি সেটাই খাবো । নতুন কিছু খেতে ইচ্ছা করছে , কিন্তু যদি না খেতে পারি । এমনটি প্রায় সকলের ই হয়ে থাকে , তাই না ।
কিন্তু একটু যদি জানা থাকে যে যেটা খেতে যাচ্ছি তার মধ্যে কি আছে আর কিরকম টেস্ট তাহলে খাবার অর্ডার করা বেশ সহজ হয় । কিন্তু জানো কি খেতে যাচ্ছি ? ঠিক ই ধরেছো , পিৎজা ।

আসলে আমেরিকা নামের দেশটায় তো চট করে মনের মতো স্ট্রিট ফুড পাওয়া যায় না মানে ওই ফুচকা , ঝালমুড়ি ,এগরোল এমনিসব জিভে জল আনা , মুখ হুশ হাস করা খাবারের কথা বলছি আর কি । এগুলো খেতে হলে ওই নিজের হাতের উপরই নির্ভর করতে হবে । তবে এখানে পাওয়া যায় টা কি ? ওই পিৎজা বেশ জনপ্রিয় বলা যেতে পারে , সাথে হটডগ , চিপস-সালসা এই ধরণের কিছু-মিছু পিছনে যোগ দেয় ।
তবে যত জায়গা ঘুরেছি , তার মধ্যে বেশ কিছু নতুন নামের , নতুন ধরণের পিৎজা দোকান চোখে পড়েছে । পরে খোঁজ-খবর নিয়ে জেনেছি , ওরা নিজেদের দেশের পিৎজাকে এখানে বিক্রি করছে , যা ওদের কাছে পুরানো কিন্তু আমাদের কাছে নতুন । নানা নতুনত্ব দেখায় ওরা টপিংয়ে যা আমরা ভাবতেও পারবো না । দেখতো তোমরা কখনো খেয়েছো কি ?

১) নারকেল পিৎজা

অনেকেই পিৎজার উপর মিষ্টি কিছু টপিং পছন্দ করে থাকে যেমন আনারসের আর এদের মধ্যে আমিও আছি । চিজের হালকা নোনতা আর আনারসের হালকা মিষ্টি যখন মুখে ছড়ায় , বেশ তৃপ্তি লাগে । এইরকম ই হয়তো কোস্টা রিকার লোকজন , তারা পছন্দ অনুযায়ী তৈরী করেছে নারকেলের টপিং দেয়া পিৎজা । নারকেল কোঁড়া ছড়ানো থাকে পিৎজার উপর , এতে পিৎজার গন্ধ পাল্টায় না কিন্তু স্বাদ পরিবর্তন হয় আর দেখতেও । হয়তো সকলের পছন্দ হবে না কিন্তু একটু নতুন ধরণের স্বাদ নিতে চেখে দেখতেই পারো ।

২) পিৎজা মকবা

নামটা বেশ না ? অনুমান করতো কোথাকার মানুষজনের পছন্দ এই পিৎজা ? যদি কখনো কোনো বাচ্ছাকে দেখো এই পিৎজা অর্ডার করতে যার উপরে ছড়িয়ে থাকবে টুনা মাছ কিংবা সার্ডিন তখন চোখ বন্ধ করে জেনে নেবে সে রাশিয়ান । হ্যাঁ , মস্কোয় তৈরী এই পিৎজার স্বাদ বেশ নোনতা কারণ এর টপিং হলো স্যামন , টুনা, সার্ডিন , ম্যাকারেল মাছ আর কিছু হার্বস আর পেঁয়াজ । এটাও সকলের পছন্দ হবে না তবে যারা মাছের নানা পদ খেতে ভালোবাসো তারা একটা খেয়ে দেখতে পারো এই মৎস্য-পিৎজা ।

৩) মায়ো জাগা

জানো কি , জাপানিজরা মেয়োনিজ খেতে খুব ভালোবাসে , নিজেদের অনেক ডিশে ই তারা এটা ব্যবহার করে । কিন্তু তারা আবার স্বাস্থ্য সচেতন ও তাই অন্য জায়গায় যেখানে পুরো ডিম্ দিয়ে মেয়োনিজ তৈরী হয় সেখানে ওরা বানায় শুধুমাত্র ডিমের সাদা অংশ দিয়ে । আর এর নাম হলো কেউপি মেয়ো যা খেতে বেশ হালকা স্বাদের । ওরা এটাকে টপিং হিসাবে ব্যবহার করে আর সেটা করে পিৎজার সাথে ও । তাই জাপানে মায়ো জাগো একটা বেশ জনপ্রিয় খাবার যেটা হলো গরম মেয়োনিজ টপিং দিয়ে পিৎজা আর সাথে আলু । কি , খেতে ইচ্ছা হচ্ছে নাকি ? ঢুঁ মেরে দেখতে পারো কাছাকাছি কোনো জাপানি রেস্টুরেন্টে পাওয়া যায় কি না ।

৪) বানানা কারি পিৎজা

সুইডিশ দেশের পিৎজা যা বেশ পুরানো ঘরানার । এখন খুব কম জায়গাতেই পাওয়া যায় তবে কম পাওয়া যায় বলে অনেকেই এর ব্যাপারে আগ্রহী ।আসলে এটি বানানো বেশ শক্ত কারণ অনেক সময় লাগে এই ” বানানা কারি ” বানাতে । তার উপর এর একটা অদ্ভুত গন্ধ আছে যা ঘরের মধ্যে সহ্য করা মুশকিল । তাই লোকে বাইরে বসেই এই পিৎজা খেতে পারে । তবে যারা খেয়েছে তারা বলে নাকি , এর স্বাদ বর্ণনা করা দুস্কর । বানানা কারি সাথে বাদামের টপিং দিয়ে তৈরী পিৎজা মুখে ভরলে নাকি মুখ আনন্দে সব ঘুলিয়ে ফেলে । যারা খাবার নিয়ে বেশি রকমের দুঃসাহসী তারা একবার চেষ্টা করে দেখতে পারো , আমি অবশ্য ওই দলে নেই ।

৫ ) পিৎজা বের্লুস্কোনি

কখনো রাজনীতি , দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ ডেকে আনে আবার কখনো তৈরী করে এক নতুন ধরণের পিৎজা । কোনো এক সময়ে ইতালির প্রধান মন্রী , সিলভিও বের্লুস্কোনি ফিনল্যাণ্ড পরিদর্শনে যান আর ওখানকার খাবার-দাবার নিয়ে তির্যক মন্তব্য করেন । ওখানকার বাসিন্দারা ব্যাপারটাকে হালকা ভাবে নিয়ে এক নতুন ধরণের খাবার বানান আর ওই প্রধানমন্ত্রীর নামে নামকরণ করেন । আর সেই খাবার হলো , একটা নতুন ধরণের পিৎজা । এর টপিং হলো , মাশরুম, পেঁয়াজ আর গ্রিল করা বলগা হরিনের মাংস আর নাম হলো , ” পিৎজা বের্লুস্কোনি “। যারা নানা ধরণের মাংস খেতে ভালোবাসেন তারা একবার অবশ্যই খাবেন । ইউরোপিয়ানদের কাছে বেশ জনপ্রিয় এই পিৎজা ।

ফটো : গুগুল

Tagged ,

About Antara Samanta

Myself is Antara Samanta, a wanna be writer in homemaking style with an idea to embrace the indifference in a classy dynamic way. Antara is passionate about reading,singing and writing-in that way.
View all posts by Antara Samanta →